Home » আমার বরগুনা » তালতলী » চোখের সামনে নিষ্পাপ মেয়েটি চিকিৎসার অভাবে মারা যাবে?
চোখের সামনে নিষ্পাপ মেয়েটি চিকিৎসার অভাবে মারা যাবে?
চোখের সামনে নিষ্পাপ মেয়েটি চিকিৎসার অভাবে মারা যাবে?

চোখের সামনে নিষ্পাপ মেয়েটি চিকিৎসার অভাবে মারা যাবে?

ফুটফুটে এই শিশুটির নাম তাহিয়া আমিন খান তাকি। শিশুটি জম্মের পর থেকে বিলিয়ারি এট্রেসিয়া নামক দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত। এই অসুখের প্রভাবে ধীরে ধীরে শিশুটির লিভার অকেজো হয়ে যাচ্ছে।

বয়স ৫ মাস বয়সের এই শিশুটিকে বাঁচাতে সরকার ও সমাজের বিত্তবানদের এগিয়ে আসার অনুরোধ জানিয়েছেন তার পিতা-মাতা। শিশুটির পিতা আলআমিন একজন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক।

লিভার বিশেষজ্ঞ ডাক্তাররা জানিয়েছেন, এটি শিশুটির জন্মগত ত্রুটিজনিত রোগ। এই রোগের চিকিৎসা হলো- লিভার প্রতিস্থাপন করা। লিভার প্রতিস্থাপন করতে পারলে সে সুস্থ্য ও স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে পারবে ইনশাআল্লাহ। এর জন্য শিশুটিকে ভারতের চেন্নাইয়ের রেলা ইনস্টিটিউটে যেতে হবে। যেখানে চিকিৎসা ও আনুষঙ্গিক খরচ হবে প্রায় ৬০ লাখ টাকা।

আরো পড়ুন :  ছেলেকে মাদক বিক্রিতে রাজি করাতে না পেরে মা-বাবাকে কুপিয়ে জখম

তাকির পিতা আল আমিন সন্তানের চিকিৎসার জন্য ইতোমধ্যে নিজের গচ্ছিত ৫ লাখ টাকা খরচ করেছেন। ধার করেছেন প্রচুর অর্থ। এছাড়া সন্তানকে বাচাঁতে জমিজমাও বিক্রি করেছেন। সর্বোচ্চ চেষ্টা করে হয়তো আর ১০/১৫ লাখ টাকা ম্যানেজ করতে পারবেন।
কিন্তু বাকি ৪৫ লাখ টাকা তার পরিবারের পক্ষে ম্যানেজ করা  সম্ভব না। তাই তিনি সরকার ও দেশের বিত্তবানদের কাছে সাহায্য চাইছেন।

 

আমার চোখের সামনে নিষ্পাপ মেয়েটা চিকিৎসার অভাবে মারা যাবে? এটা মেনে নিই কিভাবে?

আমার চোখের সামনে নিষ্পাপ মেয়েটা চিকিৎসার অভাবে মারা যাবে? এটা মেনে নিই কিভাবে?

শিশুটির পিতা আল আমিন বলেন, “আমি জানি এটা অনেক বড় অ্যামাউন্ট। কিন্তু আমার চোখের সামনে নিষ্পাপ মেয়েটা চিকিৎসার অভাবে মারা যাবে? এটা মেনে নিই কিভাবে?”

“ওর শারীরিক অবস্থা দিনদিন অবনতি হচ্ছে,সতেজ হাসি ফিকে হচ্ছে । তাই বিত্তশালী ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান ও আমার বন্ধুদের কাছে মিনতি করছি আমাদের নিষ্পাপ মেয়েটার জীবন বাঁচাতে এগিয়ে আসুন।”

আরো পড়ুন :  প্রকাশ্যে রাস্তায় ফেলে নারীকে নির্যাতন যুবলীগ নেতার

“আশাকরি আপনারা কেউ খালি হতে আমাকে ফেরত দিবেন না। আর আমাদের নিরাশও করবেন না। আপনাদের সবার অল্প অল্প সহযোগিতায় আমি হয়তো আমার সন্তানের সুচিকিৎসা করাতে পারবো। সুস্থ করে তুলতে পারবো আমার বুকের মানিককে। সবাই আমার সন্তান তাহিয়ার জন্য দোয়া করবেন।”

তাহিয়া আমিন খান তাকিকে সাহায্য পারবেন নিচের মাধ্যমগুলোতে-

  • আল আমিন (বাবা)
    01719659253 (বিকাশ+রকেট +নগদ),
  • মৌসুমী খানম (মা) 01309190026(বিকাশ+ রকেট)
  • ডাচ বাংলা ব্যাংক একাউন্ট নং 2181030021225
    মৌসুমী খানম (মা) পটুয়াখালী শাখা।
  • ইসলামী ব্যাংকএকাউন্ট নং 20507770220438916
    আল আমিন (বাবা) তালতলী শাখা, এজেন্ট ব্যাংকিং।
  • সোনালি ব্যাংক একাউন্ট নং 4321601000876
    আল আমিন (বাবা) তালতলী শাখা,বরগুনা।