Home » আমার বরগুনা » তালতলী » ছেলেকে মাদক বিক্রিতে রাজি করাতে না পেরে মা-বাবাকে কুপিয়ে জখম

ছেলেকে মাদক বিক্রিতে রাজি করাতে না পেরে মা-বাবাকে কুপিয়ে জখম

গোলাম কিবরিয়া, বরগুনা অনলাইন : বরগুনার তালতলীতে ছেলেকে ইয়াবা বিক্রিতে রাজি না করাতে পেরে তারা মা-বাবাকে কুপিয়ে জখম করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।
বুধবার (২৭মে) বেলা ১১টার দিকে তালতলী সাংবাদিক ফোরামের অফিসে এসে এ বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ভুক্তভোগী মিরাজ।

লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার নিশানবাড়িয়া ইউনিয়নের মহারাজ পহলানের ছেলে মিরাজকে পাশবর্তী হারুন, নুর মিয়া ও ছত্তার মল্লিক ইয়াবা বিক্রির প্রস্তাব দেন। এতে রাজি হননি মিরাজ। এর কয়েক মাস পর হারুন ও নুর মিয়া ইয়াবাসহ পুলিশের হাতে ধরা পড়েন। পরে জামিনে ছাড়া পেয়ে ফের তাকে ইয়াবা বিক্রি করতে প্রস্তাব দেয়। এতেও রাজি না হওয়ার জের ধরে মঙ্গলবার রাত ৭টার দিকে মিরাজের বাড়িতে গিয়ে তাকে না পেয়ে মা ও বাবাকে কুপিয়ে আহত করে হারুন, নুরু মিয়া ও তার ছেলে। এরপর তার বাবাকে বাড়ির পাশে পরিত্যক্ত স্থানে ফেলে রেখে যায়। পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে পটুয়াখালী সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। অবস্থার অবনতি হলে তাকে বরিশাল শেরে-বাংলা মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আর মা প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে বাড়িতে আছেন।

আরো পড়ুন :  বরগুনায় বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণ

মিরাজ আরো বলেন- এঘটনায় তালতলী থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে। আমি মাদক ব্যবসায়ের সাথে জড়িত না হতে চাইলে বিবাদীরা আমাকে জীবনাশের হুমকি দেয়। তাই কোনো উপায় না পেয়ে সংবাদকর্মী ভাইদের মাধ্যমে প্রশাসনের নজরে আনার জন্য সংবাদ সম্মেলন করেছি।

এ বিষয়ে হারুন বলেন আমার বিরুদ্ধে যে অভিযোগে সংবাদ সম্মেলনে করা হয়েছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা। তবে তারা নিজেরা মারামারি করে আমাকে দোষরোপ করছে। মারামারির বিষয়ে আমি অনেক বার নিষেধ করছি তাদেরকে।

তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কামরুজ্জমান মিয়া বলেন, এ ঘটনার বিষয়ে লিখিত কোনো অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।