Home » আমার বরগুনা » বেতাগী » বেতাগীতে ত্রাণের নামে অর্থ আদায়ের অভিযোগ

বেতাগীতে ত্রাণের নামে অর্থ আদায়ের অভিযোগ

সৈয়দ নূর-ই আলম, বেতাগী (বরগুনা) : বেতাগীতে ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে টাকার বিনিময়ে ত্রাণের চাল বিতরণসহ একাধিক দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার বুড়ামজুমদার ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. ফোরকান হাওলাদারের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ করেছেন সংশ্লিষ্ট এলাকার একাধিক ভুক্তভোগী।
তাদের অভিযোগ- ইউপি সদস্য ফোরকান ত্রাণ বা বিভিন্ন সহযোগিতার কথা বলে এলাকার লোকদের কাছ থেকে ২ থেকে ৩ হাজার টাকা করে উৎকোচ নিয়েছেন। এছাড়া জেলেদের নামের ৮০ কেজি চালের ৩০/৪০ কেজি উৎকোচ নেয়ার একাধিক অভিযোগ রয়েছে।

ভুক্তভোগীরা জানান, ইউপি সদস্য ফোরকানের বিরুদ্ধে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ জানানো হয়েছে এবং তিনি ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন।

জানা গেছে, গত ১৫ মে রাতে এক জেলের প্রাপ্ত চাল থেকে ৩০ কেজি চাল ওই ইউপি সদস্যের বোনের বাসায় দিয়ে যেতে বলা হয়। যা ওই রাতেই বেতাগী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিদের্শনায় পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে। এসময়ে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. সৈয়দ গোলাম রব (শক্কুর মীর) উপস্থিত ছিলেন। চেয়ারম্যান জেলের বউকে জিজ্ঞেস করলে তিনি বলেন, ইউপি সদস্য ফোরকান তার বোনের বাসায় এক বস্তা দিয়ে আসতে বলেন।

আরো পড়ুন :  বেতাগীতে ত্রাণ দেয়ার নামে অর্থ আদায়ের অভিযোগ

সেকান্দার ও জরিনা নামের দুই ভুক্তভোগী জানান, তাদের কাছ থেকে রেশন কার্ডে নাম দেয়ার কথা বলে দুই হাজার টাকা নিয়েছেন এবং ভিজিডি নামের কথা বলে পাঁচ হাজার টাকা নিয়েছেন কিন্তু কোনো ধরনের সহায়তা তাদের দেয়া হয়নি।

এসব ব্যাপারে অভিযুক্ত ইউপি সদস্য মো. ফোরকান বলেন, এলাকার একটি কুচক্রিমহল আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে এসব করছেন। আমি এসব কর্মকাণ্ডের সাথে কোনোভাবে জড়িত নই।

এ বিষয়ে বুড়ামজুমদার ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. সৈয়দ গোলাম রব বলেন, ইউপি সদস্য ফোরকানের বিরুদ্ধে একাধিক সাক্ষ্য ও প্রমাণ পাওয়া গেছে। জনপ্রতিনিধি কর্তৃক এ ধরনের কাজের আমি তীব্র নিন্দা জানাই ও তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বেতাগী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রাজিব আহসান এ ব্যাপারে বলেন, উক্ত বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত করার জন্য প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে এবং তদন্ত শেষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।