Home » আমার বরগুনা » তালতলী » পাকা রাস্তার অপেক্ষায় তালতলীর ৭ গ্রামের মানুষ

পাকা রাস্তার অপেক্ষায় তালতলীর ৭ গ্রামের মানুষ

গোলাম কিবরিয়া, বার্তা সম্পাদক : বরগুনার তালতলীতে একটি পাকা রাস্তার অপেক্ষায় স্কুল-মাদ্রাসার শিক্ষার্থীসহ ৭টি গ্রামের মানুষ। এসব এলাকার মানষ ও শিক্ষার্থীরা দুর্ভোগে রয়েছেন। রাস্তাটি পাকাকরণের দাবিতে মানববন্ধনও করেছেন এলাকার মানুষ। স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর সড়কটি পাকা করার আশ্বাসও দিয়েছে। তবে তার বাস্তবায়ন নিয়ে শংকায় এলাকাবাসী।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বরগুনার আমতলী-তালতলী উপজেলা সড়কের প্রাণিসম্পদ হাসপাতালের পাশে একটি গ্রামীণ অবকাঠামোর রাস্তা। ছাতনপাড়া, জাকিরতবক, সুন্দরিয়া, চল্লিশ কানি, বেহেলা, পাঁচশবিঘা ও বেতিপাড়া গ্রামের স্কুল-কলেজ-মাদ্রাসা শিক্ষার্থীসহ প্রতিদিন ১০ থেকে ২০ হাজার মানুষের চলাচলের এক মাত্র রাস্তা এটি। কিন্ত বর্ষার সময় ৩ কিলোমিটাররের এই রাস্তাটি কাদা হয়ে যায়। ফলে ভোগান্তিতে পড়তে হয় এই ৭টি গ্রামের জনসাধারণের। সাপ্তাহিক বাজারের জন্য তালতলী বন্দর বাজারে আসতে হয় এই প্রান্তিক মানুষের। বর্ষার সময় ঠিকভাবে বাজারে আসা-যাওয়া করা সম্ভব হয় না। বিশেষ করে জীবনজীবিকা তাগিদে ছুটে বেড়াতে হয় দিন-মজুর মানুষের। কিন্তু বর্ষার এই তিন মাস কর্মহীন হয়ে ঘরে বসে থাকতে হয়।

আরো পড়ুন :  ইসলামী সংগীতের উদীয়মান তারকা আব্দুল্লাহ আল মুআজ

সম্প্রতি এক মানবন্ধনে বক্তারা বলেন, আমাদের ৭ গ্রামের মানুষের প্রাণের দাবি এই রাস্তাটি যাতে পাকা হয়। প্রতি বছর বর্ষার সময় আমাদের সব ধরনের কাজ-কর্ম বন্ধ হয়ে যায়। ঘন বর্ষায় এই রাস্তা দিয়ে চলাচলের সুযোগ থাকে না। তাই সরকারের কাছে দাবি উপজেলার পাশের এই রাস্তাটি পাকা করে দিন। এতে ৭ গ্রামের স্কুল-মাদ্রাসা ও কলেজের শিক্ষার্থীসহ হাজার হাজার মানুষের দুঃখ-দুদর্শা থেকে মুক্তি পাবে।

এ বিষয়ে তালতলী উপজেলা প্রকৌশলী আহম্মেদ আলী বলেন,খোঁজ-খবর নিয়ে দেখতে হবে আমাদের কোনো প্রকল্প দেওয়া আছে কি-না। থাকলে দ্রুত কাজ করা হবে। যদি না থাকে তাহলে পাকাকরণের জন্য অধিদপ্তরে প্রস্তাবনা পাঠানো হবে।